5.5 C
New York
Saturday, March 2, 2024

৮-৯ মাস থেকে ডিম-মাছ-মাংস থাকুক শিশুর পাতে। ঝালিয়ে নিন রেসিপি!

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

অনেক হল বাপু সবজি,ডাল আর ফল সেদ্ধ। বাচ্চা এবার ৮ মাসের হয়ে গেছে, তাই ওর রোজের খাবারে হইহই করে ঢুকে পড়বে প্রাণিজ প্রোটিন। ডিম, মাছ, মাংসের সাথে ওর আলাপ শুরু হবে এখন থেকেই। (8-9 Months Baby Food Chart And Recipes)

- Advertisement -

বাচ্চাকে সেদ্ধ ডিমের কুসুম দেবেন ৮ মাস বয়স থেকেই। মাছ আসবে ৯ মাস বয়স থেকে আর মুরগির মাংস পাতে ঢুকবে ৯ মাস হলে বা তার পরে। (Bachar Khabar Talika) ৬ মাস ও ৭ মাসের বাচ্চার খাবার নিয়ে যে প্রতিবেদন সাজিয়ে দিয়েছিলাম, তাতে হরেক পরিজ এবং সবজি-ডাল মেলানো খাবারের রেসিপি আছে।

এই প্রতিবেদনে তাই জোর দিলাম বাচ্চাকে কীভাবে ডিম, মাছ বা মাংসের সাথে পরিচয় করাবেন, তাই নিয়ে। সামান্য অলিভ অয়েল বা খাঁটি ঘি, নামমাত্র মশলা দিয়ে কীভাবে বানাবেন মাছের স্যুপ বা ডিমের খিচুড়ি, সবরকম প্রশ্নের জবাব রইল এখানে (8,9,10 months Baby Food Chart)।

আপনার ৮ বা ৯ মাসের ছানার খাতিরে রেসিপিগুলো একবার বানিয়ে দেখুন, নতুন খাবার পেয়ে ফোকলা মুখে কান এঁটো করা হাসি উপহার দেবে খুদেটি। ঘুরিয়ে ফিরিয়ে রেসিপিগুলো বানালে ওর একঘেয়েও লাগবে না। গপাগপ খাবার খাবে ছানা আর নিশ্চিন্ত হবেন আপনি।

৮-৯ মাসের বাচ্চাকে কী কী খাবার দেওয়া যায়? (Foods for 8-9 Months Old Baby)

  • ফলের মধ্যে আপেল, আম, কলা, নাশপাতি, অ্যাভকাডো, পিচ ফল, পেঁপে তো ৭ মাস থেকেই খাচ্ছে। এবার ওর তালিকায় ঢুকবে, খেজুর, স্ট্রবেরী , বেদানা, কিউই ও আঙুর। ফলের ভর্তা খাচ্ছে খাক, তবে এবার অভ্যেস করাতে হবে নিজে নিজে খাওয়ার। নরম ফল এমনভাবে কেটে দিন যাতে ও হাতে ধরে মুখের কাছে নিয়ে যেতে পারে। অন্তত চাটতেও পারে। এভাবেই একদিন দেখবেন নিজেই কুটকুট করে কামড়ে ফল খাচ্ছে ছানা। (8th Month Baby Food) আর এতে খাবারের প্রতি আগ্রহও জন্মায়।

  • ডালের মধ্যে মুগ ডাল, মুসুরির ডাল সেদ্ধ বা ডালের জল বাচ্চাকে খাওয়ান।
  • সবজির মধ্যে মিষ্টি আলু, মিষ্টি কুমড়ো, আলু, গাজর, মটরশুঁটির মতো সবজি ভর্তা বানিয়ে বা স্যুপের মধ্যে চটকে বাচ্চাকে তো দিতেনই, এবার আনুন ফুলকপি, ব্রকলি, কুমড়োর মতো সবজিকেও।
  • রাগি, বার্লি, সাবু, ওটসের নরম পদ এবং ভাত রাখুন বাচ্চার রোজের খাদ্যতালিকায় (Meal Plan for 8-9 Months Old Baby)।
  • বাচ্চার পাতে আমিষ বা প্রাণিজ প্রোটিন ঢুকে যাবে ডিমের হাত ধরে। আসবে কাতলা মাছ ও মুরগির মাংসও। ৮ মাস থেকে বাচ্চাকে দিন সেদ্ধ ডিমের কুসুম। গোটা ডিম খেতে আরেকটু দেরি আছে যে!
  • মাছের ক্ষেত্রে শুরু করুন কাতলা মাছ দিয়ে। বাচ্চা মাছ শুরু করবে ৯ মাস থেকে। মুরগির মাংস অনেকে ৯ মাস থেকেই দিয়ে থাকেন আবার অনেকে কিছু পরে দেন। ইচ্ছে আপনার।

৮ মাসের বাচ্চাকে দিনে কখন সলিড ফুড খাওয়াবেন? (8-9 Month Baby Food Chart with Time)

বাচ্চা ৭ মাসের থেকেই দিনে ৩বার সলিড খাবার খাচ্ছে। ৮-৯ মাসেও এর ব্যতিক্রম হবে না। মাঝে প্রয়োজন অনুসারে দিন বুকের দুধ/ফরমুলা। আপনাদের বোঝানোর সুবিধার্থে নীচে একটি ফুড চার্ট দিয়ে দিলাম। সময়ের আন্দাজ এতে হয়ে যাবে, আর ৮-৯ মাসের বাচ্চাকে কী কী খাওয়াবেন, তার রেসিপিগুলোও রইলো (8-9 Months Old Baby Food Chart Along With Recipes)

৮-৯ মাসের বাচ্চার জন্য পুষ্টিকর কিছু রেসিপি (Homemade Baby Food Recipes for 8-9 Months)

#1. ডিমের কুসুম দিয়ে ভাতের পেস্ট (৮ মাস):

  • নিজেরা যে ভাত খান সেই ভাতই একটু বেশি নরম করে বানান। ভাতের মাড়টা পুরো ফেলে দেবেন না। একটু সেমি সলিড দেখতে হবে এরকম ভাতের মাড় ও ভাত একটা পাত্রে তুলে নিন। (Bacchader Pustikor Khabar) বাড়িতে বানানো খাঁটি ঘি বা মাখন এবং সামান্য রক সল্ট দিন ওতে।
  • এবার একটা সেদ্ধ ডিমের কুসুম হাতে নিয়ে ভেঙে ওই ভাতের সাথে চটকে মেখে দিন। মাখাটা হবে একদম পেস্টের মতো। ডিমের কুসুম যেন খুব ভালো করে ভাতের সাথে মিলে যায়। চটকানোর জন্য ব্যবহার করতে পারেন বেবি ফুড ম্যাসার। চামচে করে বাচ্চাকে খাওয়ান।

প্রথমদিনেই ১ টা গোটা কুসুম না দিলেই ভালো হবে। অর্ধেকটা দিয়ে দেখুন বাচ্চার কেমন লাগছে বা ওর শরীরে কোনও অস্বস্তি বা এলারজি হচ্ছে কিনা? বাচ্চার যদি খাবার থেকে এলারজি হওয়ার প্রবণতা থাকে, তা হলে ডিম শুরু করার আগে একবার ওর ডাক্তারবাবুর অনুমতি নিয়ে নেবেন (Diet Chart For 8-9 Months Baby‎)। বাচ্চা যদি ডিমের স্বাদ চুটিয়ে উপভোগ করে এবং ওর শরীরে কোনও অস্বস্তি না হয়, তা হলে বাচ্চাকে ডিম দিতে পারেন নিয়মিত।

#2. কুসুম দিয়ে সবজি মাখা (৮ মাস):


এটা আর কিছুই নয়, সবজি ও ডিমের কুসুমের একটা পেস্ট।

  • বাচ্চাকে আপনি যা যা সবজি খাওয়াতে শুরু করেছেন তার দু-তিন রকম নিয়ে কুচিয়ে কেটে নিন।
  • প্রেসার কুকারে এক চা চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে সবজিগুলো নাড়াচাড়া করে অল্প নুন এবং পরিমাণ মতো জল দিয়ে রান্না হতে দিন। ২টি সিটি হয়ে গেলে নামিয়ে নিন (Sisur Khabar Recipe)। ভাপ খুলে গেলে ওতে একটা সেদ্ধ ডিমের কুসুম চটকে বাচ্চাকে খাওয়ান।

দুপুরের ভারী খাবার খাওয়ার আগে ফল রাখতে ভুলবেন না যেন! ফলের পিউরি হোক বা ছোট টুকরোয় কেটে হাতে ধরিয়ে দিন; নিয়মিত একটা ফল কিন্তু দেওয়া উচিত বাচ্চাকে। আগেও রেসিপি দিয়েছি (Bacchader Khabar Recipe),

আপনাদের জন্য আবার এছাড়াও, ৬ মাসের বাচ্চার খাবার-দাবার নিয়ে যে প্রতিবেদনটি বানিয়েছিলাম, তাতে কিন্তু আরও ফলের পিউরির রেসিপি পাবেন। পাবেন কিছু নরম খাবারের রেসিপিও (8-9 Maser Bachar Khabar Talika) যা হয়তো মাঝেসাঝে কাজে লেগে গেল

#3. ডিম-ওটমিল খিচুড়ি (৮ মাস):

উপকরণ (Ingredients):

  • ওটস
  • বিনস, গাজর, মটরশুঁটি, আলু, কুমড়ো ২/৩ টুকরো, খোসা ছাড়ানো টম্যাটো কুচি অল্প (সবজি আপনার ইচ্ছেমতো এবং বাচ্চার স্বাদমতো অবশ্যই এদিক ওদিক করতে পারেন)
  • অলিভ অয়েল
  • হলুদ গুঁড়ো অল্প
  • জিরে গুঁড়ো অল্প
  • নুন সামান্য
  • একটা সেদ্ধ ডিমের কুসুম

পদ্ধতি (Method):

  • সবজি ধুয়ে কুচিয়ে নিন।
  • প্যানে ১ টেবিল-চামচ অলিভ অয়েল, হলুদ গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো দিয়ে সবজিগুলো আধ-সেদ্ধ করে নিন।
  • ওটস, আধ-সেদ্ধ সবজি, নুন সবকিছু ভালো করে নাড়াচাড়া করে প্রেসার কুকারে বসিয়ে দিন।
  • ২টি সিটি হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।
  • কুকারের ভাপ খুলে গেলে ওটস আর সবজির থকথকে মিশ্রণটায় ডিমের কুসুম ভেঙে ভালো করে চটকে মেখে দিন।
  • বাড়িতে তৈরি ঘি মিলিয়ে বাচ্চাকে খাওয়ান ডিম-ওটমিল খিচুড়ি।

ওটস দিয়ে কিন্তু শুধু এই খিচুড়িই হয় না (8-9 Month Baby Food Recipes)। ৮ মাসের বাচ্চার খাওয়ার উপযোগী দারুণ পুষ্টিকর কিছু খাবার বানাতে পারেন এই ওটস দিয়েই।

#4. ডালের জলে কাতলা মাছ সেদ্ধ (৯ মাস হলে)

কী কী লাগবে?

  • মুসুরির ডাল
  • এক চিমটে রক সল্ট
  • এক চিমটে চিনি
  • ঘরে বানানো ঘি (না থাকলে মাখন)
  • কাতলা মাছের ছোট টুকরো- এক পিস

কীভাবে বানাবেন?

  • মুসুরির ডাল ভালো করে ধুয়ে রক সল্ট, চিনি দিয়ে পরিমাণমতো জলে সেদ্ধ করে নিন।
  • ডালটা সেদ্ধ হয়ে গেলে ডালের জল আলাদা করে রাখুন।
  • এবার একটা পাত্রে বাড়িতে তৈরি ঘি বা মাখন দিয়ে কাতলা মাছের টুকরোটা ঢাকা দিয়ে দিয়ে ভেজে নিন বা শ্যালো ফ্রাই করে নিন (Bacha Der Khabar)।
  • মাছ ভাজা হয়ে গেলে কাঁটা ছাড়িয়ে মাছ আলাদা করে নিন।
  • এবার ডালের জলে ওই কাঁটা ছাড়ানো কাতলা মাছটা দিয়ে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিন।
  • ভালো করে চটকে একটা মিশ্রণের মতো বানিয়ে বাচ্চাকে খাওয়ান।

খিচুড়ি/ভাত তো চলছেই; জানেন কি, মাছ আর সবজির স্যুপ কিন্তু বাচ্চাদের দারুণ প্রিয়। ৯ মাস বয়স থেকেই দিতে পারেন এই পাতলা মাছের স্যুপ। (Sisur Khabar Recipe) থকথকে করে খাওয়াবেন না পেস্ট করে খাওয়াবেন, সেটা অবিশ্যি মায়ের ইচ্ছে।

#5. ৯ মাস স্পেশ্যাল মাছের খিচুড়ি:

কী কী লাগবে?

  • পোলাও-এর চাল ১ কাপ
  • মুসুরির ডাল ১ কাপ
  • পেঁয়াজ কুচোনো
  • আদা ও রসুন বাটা
  • রক সল্ট এক চিমটে
  • জিওল মাছ বা চারাপোনা/কাতলা (Macher Khichuri Recipe) মাছের টুকরো
  • অল্প তেল (ভেজিটেবল অয়েল বা অলিভ অয়েল বা ঘানির খাঁটি সরষের তেল)

কীভাবে বানাবেন?

  • মাছ ভাপে সেদ্ধ করে নিয়ে কাঁটা ছাড়িয়ে আলাদা করে রাখুন।
  • হাঁড়িতে অল্প তেল নিয়ে গরম করুন ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে দিন।
  • পেঁয়াজ গুলো ভাজা ভাজা হয়ে এলে ওতে আদা রসুনের পেস্ট দিন।
  • এক চিমটে রক সল্ট দিন ও অল্প হলুদগুঁড়ো দিন।
  • মশলাটা ভালো করে কষিয়ে নিয়ে ধুয়ে রাখা ডাল ও চাল দিয়ে দিন।
  • কিছুক্ষণ পুরোটা কষিয়ে নিন এবং সেদ্ধ হওয়ার জন্য জল ঢালুন।
  • ঢাকা দিয়ে রান্না হতে দিন (Rohu Fish)।
  • এবার ডাল ও চাল একটু সেদ্ধ হয়ে এলে, ওতে ভাপিয়ে রাখা মাছটা দিয়ে দিন।
  • আরও কিছুক্ষণ রান্না করুন।
  • ভালো করে মিক্স করে গ্যাস অফ করে দিন।

আপনি চাইলে এই খিচুড়িতে আলু ও যে কোনও সবজি দিতে পারেন (Steam Fish Recipe)।এই খিচুড়িতে মাছের জায়গায় ডিমের কুসুম মেলাতে চাইলে দিতে পারেন নির্দ্বিধায়।

#6. মুরগির পাতলা স্যুপ (৯ মাস বা তার পরে):

উপকরণ:

  • কুমড়ো,গাজর, বিনস, আলু, পেঁপে ইত্যাদি সবজি (বাচ্চা যা খায়)
  • খোসা ছাড়ানো টম্যাটো কুচি
  • দুই টুকরো মুরগির মাংস
  • অলিভ অয়েল
  • অল্প পেঁয়াজ কুচি
  • জিরে ও ধনে গুঁড়ো
  • নুন অল্প

পদ্ধতি:

  • কুকারে অলিভ অয়েল দিয়ে গরম হলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে দিন।
  • একটু নাড়াচাড়া করে টম্যাটো দিয়ে দিন।
  • এবার সব সবজিগুলো দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করুন।
  • এবার মুরগির মাংসের টুকরোগুলো দিয়ে দিন।
  • জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো ও নুন দিয়ে দিন।
  • ঢাকা দিয়ে একটু নরম হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন।
  • হলুদ দিতেও পারেন আবার নাও পারেন।
  • এবার পরিমাণমতো জল দিয়ে কুকারের ঢাকা লাগিয়ে দিয়ে ৪- টি সিটি হওয়া অব্দি অপেক্ষা করুন।
  • ভাপ খুলে গেলে পুরোটা একটা পাত্রে ঢেলে নিন।
  • বাচ্চা যেহেতু ৯ মাসের, তাই ওর জন্য মুরগির স্টকটাই সবথেকে ভালো হবে (8-9 Month Baby Food List)।
    মাংসগুলো আলাদা করে তুলে রেখে দিন।
  • এবার সেদ্ধ সবজি আর মুরগির স্টকটা ব্লেন্ডারে নিয়ে একটা মিহি পেস্ট করে নিন।
  • খাঁটি মাখন সামান্য ছড়িয়ে বাচ্চাকে খাওয়ান।

আবার অনেকেই আছেন, যারা ৯ মাস থেকে বাচ্চার খাবারে অল্প অল্প চিকেন দিতে চান। তাদের জন্য একটি রেসিপি দিলাম ছবিতে। তবে প্রথমেই অনেকটা মাংস বাচ্চাকে দেবেন না বা ডাক্তারের সাথে কথা বলে নিন (8-9 Month Baby Food Recipes)

বাচ্চার খাবারের পরিমাণ কতটা হবে? (How Much Baby Food Should a 8-9 Months Old Eat? )

যে কোনও নতুন সবজি, ফল বা খাবার প্রথমে ৩-৪ চা-চামচ পরিমাণ দিয়ে শুরু করুন। বাচ্চার শরীর অভ্যস্ত হয়ে গেলে ধীরে ধীরে পরিমাণ বাড়াবেন। সেদ্ধ ডিমের কুসুম প্রথমে দিন অর্ধেকটা বা মাছ দিন ছোট্ট এক টুকরো। অভ্যেস হয়ে গেলে একটা সেদ্ধ কুসুম বা মাছের মাঝারি টুকরো দিতেই পারেন বাচ্চাকে (Introducing Solids to Your 8 month to 10 month old Baby)। আমিষ শুরু করার প্রথম কয়েকদিন একটু নজরে রাখুন ওর শরীর ও পটি।

কী কী বিষয়ে বিশেষ সতর্ক থাকবেন?

  • বাচ্চাকে একসাথে বা একদিনে ডিম-মাছ-মাংস অনেক রকম খাবার খাওয়াবেন না। আমিষ খাবার প্রথম শুরু করলে সেটা কম কম পরিমাণে অন্তত তিনদিন খাওয়ান (Homemade Baby Foods)। এই তিনদিন খাবার হজমে বাচ্চার কোনও সমস্যা হচ্ছে কি না বা বাচ্চার পটি কেমন হচ্ছে সেদিকে খেয়াল রাখুন। বাচ্চার কোনও খাবারে এলারজি থাকলে বুঝে যাবেন এভাবেই।
  • মুরগির মাংস অনেকে ৯ মাসের পরে শুরু করেন। আপনার ইচ্ছে হলে দেওয়ার আগে একবার ডাক্তারবাবুর অনুমতি নিয়ে নিন।
  • অনেকে বাচ্চার খাবারে সামান্য তেল ও জিরে/হলুদের মতো মশলা দিয়ে থাকেন। বাচ্চার জন্য সবকিছুই হবে পরিমাণে কম। আপনি যদি হলুদ, জিরে বা ধনে ইত্যাদি মশলার সাথে বাচ্চাকে পরিচিত করতে চান, তা হলে বাচ্চার খাবারে সেটা দিন একদম অল্প। এক-দুদিন দিয়ে দেখুন, বাচ্চার শরীরে কোনও অস্বস্তি হচ্ছে কি না (Baby Food Chart from 7 to 9 Months)। প্রয়োজনে ওর ডাক্তারের অনুমতি নিয়ে শুরু করুন।
  • চিনি ব্যবহার করবেন না। ভালো মানের তালমিছরি অনেকেই ব্যবহার করেন, কিন্তু সবথেকে ভালো হয় খাঁটি গুড় ব্যবহার করলে। নুনের ক্ষেত্রে বলবো এক চিমটে করে রক সল্ট ব্যবহার করতে।
  • খাবারে টম্যাটো মেলালে ওপরের ছালটা ছাড়িয়ে নেবেন। হজমে সুবিধে হবে।
  • বাড়িতে তৈরি খাঁটি ঘি বা অরগানিক বাটার ব্যবহার করুন বাচ্চার খাবারে।
  • বাচ্চাকে যে কোনও নতুন সলিড খাবার শুরু করানোর আগে একবার ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে নিন।

বুঝতেই পারছেন, ৬-৭ মাসের বাচ্চা যা খেতে পারে, ৮-৯ মাসের বাচ্চাও সেটা খেতে পারবে। (8-9 Maser Bachar Khabar Talika) ওর জন্য বাড়বে শুধু পরিমাণ বা খাবার সময়। তাই পুরনো রেসিপিগুলোও বানিয়ে দিন ঘুরিয়ে ফিরিয়ে। তাতে ওর মুখের স্বাদ বজায় থাকবে।

- Advertisement -

Related Articles

1 COMMENT

Leave a Comment:

Stay Connected

22,025FansLike
3,912FollowersFollow
18,600SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker

Refresh Page