18.6 C
New York
Wednesday, May 25, 2022

স্বপ্ন দোষ যে কারণে হয়, বৈজ্ঞানিক

স্বপ্ন দোষ হয় কেন? এর কি বৈজ্ঞানিক ব্যখ্যা কি আছে? ঘুমের মধ্যে হঠাৎ বীর্যপাত হওয়ার বিষয়ে বিজ্ঞান কি বলছে?

আমরা যখন ঘুমাই তখন আমাদের শরীরে এক ধরনের হরমোন নিঃসরণ হয়। এই হরমোনের কাজ হল আমাদের মাংসপেশীকে আমাদের মস্তিষ্কের নিয়ন্ত্রণের বাইরে রাখা। এর ফলে আমরা যখন স্বপ্ন দেখি তখন আকস্মিক কোন নড়াচড়া হয় না। এই হরমোন না থাকলে আমাদের বড় অসুবিধা হত বটে। কারণ, আমাদের স্বপ্নের স্থায়ীত্ব খুবই অল্প সময়। এই অল্প সময়ে আমরা হুলুস্থুল বাঁধিয়ে দিতাম এই হরমোন যদি কাজ না করত।

- Advertisement -

ঘুমের মাঝে কিন্তু অন্যান্য কাজ ঠিকই চলে। যেমন, হজম প্রক্রিয়া, হৃদপিণ্ডের কাজ, রক্ত সঞ্চালন ইত্যাদি। আর এই সব কাজের একটি হচ্ছে বৃক্কের (kidney) বর্জ্য নিষ্কাশন। আমাদের kidney আজীবন আমাদের দেহের সব বর্জ্য নিষ্কাশনের দায়িত্ব পালন করে, এমনকি কোন দিন কোন প্রকার ছুটি না নিয়ে। আমরা ঘুমালেও জেগে থাকে এই kidney দুটো। আর সারা রাত জেগে জেগে কাজ করে। রাতের বেলা ঘুমানোর পর kidney বেশি কাজ করে। কারণ তখন দেহের অন্যান্য আনুষঙ্গিক কাজ বন্ধ বা প্রায় বন্ধ হয়ে যায়। ফলে তখন kidney গুলা দেহের বেশির ভাগ শক্তি ব্যবহার করতে পারে।

কিডনীর এই দ্রুত কাজ আমাদের জন্য কাল হয়ে দাঁড়ায়। আমাদের Urinary Bladder টি প্রায় ৫০০ মিলিলিটার করে বর্জ্য ধারণ করতে পারে। তবে মজার বিষয় হচ্ছে, মাত্র ২২০ মিলিলিটার ভরলেই আমাদের প্রচণ্ড প্রস্রাবের বেগ পায়। তো ঘুমের মাঝে যখন Urinary Bladder টি ১৮০ মিলিলিটার করে জমা করে, তখন দেহের তা নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করতে হয়। এই প্রচণ্ড চাপ হয়তোবা জেগে থাকলে আপনি চেপে রাখতে পারতেন।

কিন্তু শরীরের উপর আপনার জোর নাই তখন। তাই শরীর নিজেই তা নিষ্কাশনের দায়িত্ব নেয়। আপনার ঘুম ভাঙলে স্বাভাবিকভাবে আপনি বেগ অনুভব করবেন এবং প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিবেন। কিন্তু আপনার যৌনাঙ্গে তখন যদি উষ্ণ অনুভূত হয় তাহলেই স্বপ্নদোষ হবে। এই উষ্ণতা আপনার শুক্রকে বেরিয়ে আসার জন্য আহ্বান করে, এবং এর ফলে শুক্র বের হয়ে আসে। আর এই জন্য আপনি স্বপ্ন দেখেন। স্বপ্ন দেখার জন্য আপনার এই দোষ হয় না। বরং দোষের জন্য আপনি স্বপ্ন দেখেন।

Related Articles

Leave a Comment:

Stay Connected

22,025FansLike
3,327FollowersFollow
18,600SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles